২রা আষাঢ়, ১৪৩১| ১৬ই জুন, ২০২৪| ৯ই জিলহজ, ১৪৪৫| সকাল ৭:৩০| বর্ষাকাল|

ভালুকার স্কয়ার মাস্টার বাড়ি পপুলার হাসপাতালে চিকিৎসকের ‘অবহেলায়’ প্রসূতির মৃত্যু!

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ২ জুন, ২০২৪
  • ১৫ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার স্কয়ার মাস্টার বাড়ি পপুলার হাসপাতালে চিকিৎসকের ‘অবহেলায়’সুমাইয়া(২২) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে।  গতকাল (০১ জুন) শনিবার বিকেল তিনটার দিকে পপুলার হাসপাতালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে ভালুকা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন সুমাইয়ার স্বামী ইসলাম।

নিহত সুমাইয়া গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার নিগুয়ারি ইউনিয়নের মাখল শেখ ভিটা এলাকার ইসলামের স্ত্রী।
রোগীর স্বজনরা জানান, গতকাল শনিবার বেলা এগারোটার দিকে প্রসব ব্যথা শুরু হলে সুমাইয়াকে স্কয়ার মাস্টার বাড়ির পপুলার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। বিকেল তিনটার দিকে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে দ্বিতীয় সন্তান প্রসব করে সুমাইয়া। ওই সময় চিকিৎসক এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অবহেলায় সুমাইয়ার মৃত্যু হয়।
ঘটনার পর থেকেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ গাঁ ঢাকা দিয়েছে। বারবার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।
রোগী মারা যাওয়ার পর তাৎক্ষণিক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ভাড়া করা এ্যাম্বুলেন্স এনে ময়মনসিংহের উদ্দেশ্যে পাঠিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করে। ততক্ষণে রোগীর স্বজনরা জেনে যায় যে তাদের রোগী মারা গিয়েছে। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আব্দুল হালিমকে হাসপাতালের পক্ষ থেকে দায়িত্ব দিয়ে লাশ বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করে। রাত পৌনে দশটার দিকে এম্বুলেন্স লাশ নিয়ে পৌঁছেলে এলাকাবাসী এবং রোগীর স্বজনরা ক্ষিপ্ত হয়ে এম্বুলেন্স ও সাথে পাঠানো হাসপাতালের প্রতিনিধি আবদুল হালিমকে আটক করে রাখে। দীর্ঘ প্রায় ১৭ঘন্টা আটকের পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ হাসপাতালের ভবন মালিককে পাঠায় সমাধান করার জন্য। পরে নিগুয়ারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাইজউদ্দিন মৃধার উপস্থিতিতে চার লাখ টাকার রফা দফা করা হয়। তবে নবজাতক সুস্থ আছে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category