২রা আষাঢ়, ১৪৩১| ১৬ই জুন, ২০২৪| ৯ই জিলহজ, ১৪৪৫| সকাল ৮:২৭| বর্ষাকাল|

গফরগাঁওয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ প্রার্থীর

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৩ জুন, ২০২৪
  • ৭ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদক :

আগামী ৫ জুন অনুষ্ঠিতব্য গফরগাঁও উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার, পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে গফরগাঁও সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরোজা নাজনীন ও পাগলা থানার ওসি খায়রুল বাশারকে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী ড. আবুল হোসেন দীপু। সোমবার দুপুরে ময়মনসিংহ প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য প্রশাসনের সর্বস্তরে আবেদন নিবেদন করেও অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার এবং প্রতিপক্ষ আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর পেটুয়া বাহিনীর অবৈধ অস্ত্রের মহড়া দিয়ে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করছে। জনগণকে ভয়ভীতি প্রদর্শন মোটেও বন্ধ হচ্ছে না। প্রচারণায় ব্যবহৃত তার মাইক ভাঙচুর করছে। পোস্টার ছিঁড়ে ফেলছে। এসব বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসন তাকে কোনো সহযোগিতা করছেন না।

প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে তিনি বলেন, গফরগাঁও সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরোজা নাজনীন ও পাগলা থানার অফিসার ইনচার্জ খায়রুল বাশার তার প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে প্রকাশ্যে ভোট চাচ্ছেন। তাদের পক্ষপাতিত্বমূলক আচরণে তিনি শঙ্কিত ও ভীত সন্ত্রস্ত। তারা দায়িত্বে থাকলে নিরপেক্ষভাবে ভোট গ্রহণ কোনোভাবেই সম্ভব হবে না। এমতাবস্থায় অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার, গফরগাঁও সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরোজা নাজনীন ও পাগলা থানার ওসি খায়রুল বাশারকে প্রত্যাহারপূর্বক নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য নির্বাচন কমিশনারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

এ ব্যাপারে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার মাছুম আহম্মদ ভূঞা জানান, ঘোড়া প্রতীকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর অভিযোগ সঠিক নয়। বরং তার গাড়িতে অস্ত্রধারী রয়েছে এমন অভিযোগে তল্লাশি করায় পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করছেন তিনি। এরপরও পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে তার অভিযোগ তদন্ত করে প্রমাণিত হলে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তিনি জানান, গফরগাঁও উপজেলার নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে পুলিশ সুপার পদোন্নতিপ্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামীম হোসেনসহ তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category